• সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৭:০১ পূর্বাহ্ন

লাউকাঠীতে জমির ঘাষ খাওয়ায় গরুকে কুপিয়ে জখম ইউনিয়ন পরিষদে বিচার মেলেনি ভুক্তভোগীর।

বিশেষ প্রতিনিধি / ৩৭৭ Time View
Update : বুধবার, ২০ এপ্রিল, ২০২২

পটুয়াখালী সদর উপজেলার ১ নং লাউকাঠী ইউনিয়নের ৬ নং কিসমত মৌকরন গ্রামে গবাদি পশু (গরু) পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করার অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার বাসিন্দা পন্ডিত আঁকনের ছেলে কালাম আকন এর বিরুদ্ধে।অভিযোগকারী হলেন ভুক্তভোগী বারেক গাজী।

এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক মিমাংসা হওয়ার কথা থাকলেও প্রায় ২০-২৫ দিন অতিবাহিত হলেও কোন সমাধান হয়নি বরং অভিযুক্ত কালাম আকন ভুক্তভোগী পরিবারকে উল্টো মারধরের হুমকি দিচ্ছেন বলে জানান।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী বারেক গাজী বলেন, তাট একটি গরু কালাম আকনের জমিতে গিয়ে ঘাষ খেয়েছে তাই গরুটিকে লাঠিয়ে দিয়ে পেটায় এবং দাও দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করে।এতে গরুর মাংস কেটে গিয়ে হাড্ডি জখম হয়। পরে বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম খোকন কে জানানো হয় তিনি উভয়কে ডেকে নিয়ে মিমাংসার কথা বলেন এবং আহত গরুটির চিকিৎসা করানো হবে সুস্থ্য হলে মিমাংসা করবেন বলে চেয়ারম্যান নিজেই চিকিৎসার দায়িত্ব নেন। কিন্তুু ১০ দিন পরে ডাক্তার টাকা না দিলে চিকিৎসা করবেন না এবং ঔষধের দোকানদার টাকা ছাড়া ঔষধ দিতে অস্বীকৃতি জানান এ বিষয় চেয়ারম্যানকে জানানো হলেও কোন সমাধান হয়নি। বর্তমানে আহত গরুর চিকিৎসা খরচ চালাতে কষ্ট হচ্ছে অসহায় দরিদ্র বারেক গাজীর, এছাড়াও গরুটির হাড্ডি জখম হওয়ায় যে কোন মুহূর্তে পশুটি মারাও যেতে পারে গরুটির কিছু হলে প্রায়-৫০ হাজার টাকা ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবার।এছাড়াও গরুটি দৈনিক ২ কেজি দুধ দিতো সেটা বিক্রি করে গরুর খাবার কেনা হয় এখন চিকিৎসা খরচ চালাতে গিয়ে খুবই কষ্টে আছেন ভুক্তভোগী বারেক গাজী। এই ভোগান্তির শিকার হতে রেহাই পেতে এবং পশুর উপর এমন বর্বরতার বিচার দাবি করেন।এই ঘটনা সত্যি একাধিক প্রতিবেশীরা দেখেছেন বলে জানান।

এব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম খোকন বলেন, কালাম আকন গরুটিকে পিটিয়েছে এবং কোপ দিয়েছে সেটা সে শিকার করছে এবং এটা একটা গুরুত্বর অপরাধ হয়েছে কারন গরুটি তার কোন ফসল নষ্ট করেনি শুধু জমিতে গিয়ে ঘাষ খেয়েছে। ঘটনা শুনে উভয়কে ডেকে প্রথমে ডাক্তার ডেকে পশুর চিকিৎসা প্রদান করেছি এবং আমার নিজের ভাইয়ের দোকান থেকে ঔষধ দিতে বলেছি। এরপর কি হয়েছে না হয়েছে আমাকে জানায়নি এখন আর এবিষয়ে আমি কিছুই করতে পারবো না। তারা নিজেদের মত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করুক বলে জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category