• বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

ভোলায় সংঘর্ষে ছাত্রদল নেতার মৃত্যু: ৪৬ পুলিশের নামে মামলা

অনলাইন ডেস্ক / ৩২৮ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২

ভোলায় পুলিশ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে সংঘর্ষে জেলা ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলম নিহতের ঘটনায় ৪৬ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে ভোলা সদর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আলী হায়দার কামালের আদালতে এই হত্যা মামলা দায়ের করেন নুরে আলমের স্ত্রী ইফফাত জাহান। মামলায় ভোলা থানার উপ-পরিদর্শক আনিস উদ্দিনকে প্রধান আসামি করে ওসি (তদন্ত) আরমান হোসেনসহ ৪৬ জনকে আসামি করা হয়েছে। এর আগে এ সংঘর্ষে স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী আব্দুর রহিম নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে আরও একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ নিয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে মোট দু’টি হত্যা মামলা করা হলো।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদিপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট আমিরুল ইসলাম বাসেত। মামলার বিবরণের বরাতে তিনি জানান, তেল-গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি ও লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে গত ৩১ জুলাই বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন ভোলা জেলা ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলম। এসময় তিনি পুলিশের গুলিতে গুরুতর আহত হন। এর তিন দিন পর ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এডভোকেট আমিরুল ইসলাম আরও জানান, আদালত আগামী ৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ময়নাতদন্তের রির্পোটসহ যাবতীয় কাগজপত্র আদালতে জমা দেয়ার জন্য ভোলা থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।
উল্লেখ, ৩১ জুলাই কেন্দ্রীয় বিএনপি’র কর্মসূচী অনুযায়ী তেল-গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি ও লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে ভোলায় বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ বাধা দিলে দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।
এতে ১০ পুলিশসহ বিএনপির অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হন। নিহত হন স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী আব্দুর রহিম।
এ ঘটনায় গত ৪ আগস্ট ৩০২ এবং ৩৪ ধারায় নিহত আব্দুর রহিমের স্ত্রী খাদিজা বেগম বাদী হয়ে আদালতে ওসি (তদন্ত) আরমান হোসেনসহ ৩৬ জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category