• সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৬:২১ পূর্বাহ্ন

বাউফলে দেবে যাওয়া সেতুতে ফাটল

বাউফল(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি / ২৬১ Time View
Update : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ঃ
পটুয়াখালীর বাউফলে নির্মাণাধীন অবস্থায় স্লাব দেবে যাওয়া সেই সেতুতে এবার ফাটল দেখা দিয়েছে। ধ্বসে পড়ার আতংকে ওই সেতুর ধারে কাছে যাচ্ছেন না এলাকাবাসী। গ্রামাবাসীর তোপের মুখে ঠিকাদার অ্যাপ্রোচ সড়কের কাজ না করেই গা ঢাকা দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০২১-২২ অর্থবছরে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় গ্রামীণ রাস্তায় ১৫ মিটার দীর্ঘ সেতু/কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় বাউফল উপজেলার সূর্যমণি ইউনিয়নের পূর্ব ইন্দ্রকূল সাত্তার মুন্সী বাড়ি সংলগ্ন খালে একটি সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। দরপত্র প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়ে মোট ৮১ লাখ টাকার চুক্তিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দায়িত্ব পায় সাফায়েত এন্টারপ্রাইজ নামের একটি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। নির্মাণ কাজ শুরুর পর থেকে সেতুটির নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়।

সিডিউল অনুযায়ী, সেতুটির পাইলিং নির্মাণ করা হয়নি। স্লাব ঢালাইয়ের সময় গাছের গুড়ির উপর সাটারিং নির্মাণ করা হয়। ফলে ঢালাইয়ের পরে মাঝামাঝি স্থানে প্রায় দুই ফুট স্লাব দেবে যায়।

বুুধবার সরেজমিনে পরিদর্শনকালে দেখা যায়, সেতুটির কয়েকটি অংশে ফাটল ধরেছে।

সুলতান মুন্সী, জাকির মৃধা, মহিবুল হাওলাদার, আবু জাফর, আবুল হোসেন ও ইউনুছ গাজীসহ একাধিক এলাকাবাসী বলেন, নির্মাণ কাজ শুরুর পর থেকে পদে পদে অনিয়ম হয়েছে। অনিয়মের প্রতিবাদ করায় ঠিকাদার কয়েকদিন আগে কাজ ফেলে গা ঢাকা দিয়েছেন। এখন সেতুটি ধ্বসে পড়ার আতংকে আমরা ধারেকাছে যাই না।

তারা বলেন, অনিয়মের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার পরও কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এ বিষয়ে জানার জন্য ঠিকাদারের কোন প্রতিনিধিকে প্রকল্পের সাইডে পাওয়া যায়নি।

কাজটি তদারকির দায়িত্বে থাকা বাউফল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রাজীব বিশ্বাস বলেন, সেতুটি নির্মাণে কোন অনিয়ম হয়নি। পলেস্তরার উপর হেয়ার ক্র্যাক হতে পারে। মূল অবকাঠামোতে ফাটল ধরেনি। তবুও সেতুটি পরিদর্শন করে ত্রুটি পেলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category