• বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০১:২২ পূর্বাহ্ন

বাউফলে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

Reporter Name / ৪৪৫ Time View
Update : শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২২

বাউফল প্রতিনিধি 
বাউফলে বিয়ের দাবিতে গত তিন দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছেন প্রেমিকা সুরাইয়া আক্তার সুরভি (২২) নামের এক তরুনী। গত বুধবার থেকে তিনি উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের ধানদি গ্রামের প্রেমিক নোমান মৃধার (২৮) বাড়িতে অবস্থান করছেন। এদিকে প্রেমিকা বাড়িতে আসার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছেন নোমান।
প্রেমিকা সুরাইয়া আক্তার সুরভির বাড়িও একই উপজেলার সুর্যমনি ইউনিয়নের নুরাইনপুর গ্রামের সুলতান শরিফের কন্যা। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে সে ঢাকা একটি গার্মেন্টেসে চাকরী করে আসছেন।

ভুক্তভোগী সুরভি অভিযোগ করে সাংবাদিকদের বলেন, গত এক বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে নোমানের সাথে পরিচয় হয় তার। এরপর একে অপরের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। নোমান তার সাথে দেখা করতে প্রায়ই ঢাকা আসতেন। ৭-৮ মাস অতিবাহিত হওয়ার পর বিয়ের প্রস্তাব দিলে বেঁকে বসেন নোমান। এরপর থেকে নোমন তাকে এড়িয়ে চলতে শুরু করেন। সে সম্পর্কের বিষয়টি নোমানের মাকে জানান। নোমানের মা বিয়ের জন্য তাকে আরও কয়েক মাস অপেক্ষা করতে বলেন। কিন্তু ১বছর অতিবাহিত হলেও কোন উদ্দ্যোগ নেননি নোমানের পরিবার। নিরুপায় হয়ে গত বুধবার ঢাকা (চাকুরির স্থল) থেকে প্রেমিকের গ্রামের বাড়ি চলে আসেন। ওই দিন থেকেই নোমান বাড়ি ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছেন।
প্রেমিক নোমানের মা নুরজাহান বেগম ও বোন সীমা বেগম তাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়ার জন্য বেশ কয়েক বার মারধর করেছেন বলেও অভিযোগ করেন সুরভী। শুক্রবার সকালেও তাকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে নোমানের মা নুরজাহান বেগম বলেন,‘আমার ছেলের সাথে ওই মেয়ের (সুরভির) সম্পর্ক আছে। কিন্তু আমরা কেউই তাকে মারধর করিনি। শহর থেকে আমার মেয়ে বাড়ি এসেছিল আমাকে ডাক্তার দেখানোর জন্য। তখন আমরা তাকেও (সুরভিকে) সাথে নিতে চেয়েছি। কিন্তু তিনি যেতে চাননি। তাই টানাটানি করতে গিয়ে হাতে মুখে একটু আঁচর লেগেছে।’
প্রেমিকা সুরাইয়া আক্তার সুরভির বাড়িও বাউফলের সুর্যমনি ইউনিয়নের নুরাইনপুর গ্রামে। তার বাবার নাম সুলতান শরিফ। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে ঢাকা একটি গার্মেন্টেসে চাকরী করেন।

সুরাইয়া আক্তার সুরভি বলেন,‘আমার সব কিছু শেষ হয়ে গেছে। এখন আর কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই। নোমান আমাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করবো।’
এ ব্যাপারে বাউফল থানার ওসি আল মামুন বলেন,‘বিষয়টি আমার জানানা নেই। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category