• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১২:১৭ অপরাহ্ন

মানবতার ফেরীআওলা ওসি আলাউদ্দিন মিলনের সেই ভিক্ষুক মায়ের পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলেন

Reporter Name / ১৭০ Time View
Update : শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২২

উত্তম কুমার বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি :
বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার গারুড়িয়া ইউনিয়নের গ্রামীণ জনপদে ৩০ বছর ভিক্ষা করে মানুষ করা সন্তানদের অবহেলা ও নির্যাতনের শিকার হয় হীরাধার গ্রামের ৭০ বছরের বৃদ্ধ মা রওশনারার বেগম।
বিষয়টি গত ২৯ নভেম্বরবিভিন্ন মিডিয়ায় , ভিক্ষা করে মানুষ করা সন্তানেরা নিচ্ছে না মায়ের খবর! শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করা হলে বাকেরগঞ্জ থানার ওসি আলাউদ্দিন মিলনের নজরে আসলে তার নির্দেশে থানার এ এস আই হাফিজুর ও এ এস আই ফিরোজ সহ পুলিশের একটি টিম রওশনারা বেগমের বাড়িতে গিয়ে ওসি আলাউদ্দিন মিলনের ব্যক্তিগত অর্থে শীতবস্ত্র, কম্বল, চিকিৎসার জন্য নগদ ২ হাজার টাকা তার হাতে তুলে দেয়। তখন রওশনারার ছেলে খালেক ও তার স্ত্রী নুরজাহান বেগমকে ও খালেকের চাচাতো ভাই সুলতান কে ডেকে বৃদ্ধা রওশনারা বেগমকে ছেলে খালেকের ঘরে তুলে নিতে নির্দেশ দেন পাশাপাশি সেবা যত্ন ও চিকিৎসা করার পরামর্শ দেন। তখন খালেক ও তার স্ত্রী মায়ের অবহেলা করার জন্য তার মা সহ সকলের কাছে ক্ষমা চান। এবং আজ ৩০ নভেম্বর খালেক তার স্ত্রী নুরজাহান বেগম সকাল ১০ টায় থানায় এসে ওসি’র সাথে দেখা করে ওয়াদা করেন তাদের মায়ের আর কোনোদিন অবহেলা করবে না।

উল্লেখ্য, গারুড়িয়া ইউনিয়নের হীরাধার গ্রামের মমিন উদ্দিন হাওলাদার মারা যাওয়ার পর ৩০ বছর ভিক্ষা করেই রওশনারা বেগম ১ ছেলে ও ১ মেয়েকে বড় করছেন। ছেলে খালেক হাওলাদার পেশায় রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। ভিক্ষা করে মানুষ করা সন্তানদের অবহেলা ও নির্যাতনের শিকার হন ৭০ বছরের বৃদ্ধ মা।

খালেক তার স্ত্রী সন্তান নিয়ে অন্য ঘরে বসবাস করলেও বৃদ্ধ মায়ের খোঁজ খবর রাখতেন না। ৭০ বছর বয়সে হাঁটা চলার মতো শক্তি হারিয়ে ফেলেছেন রওশনারা বেগম। ওসি আলাউদ্দিন মিলনের এমন মানবিক কর্মে বাকেরগঞ্জ সর্বস্তরের মানুষের মাঝে প্রশংসা অর্জন করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category