• মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:৫০ অপরাহ্ন

পটুয়াখালীতে নৌবাহিনীর সদস্যর বসতবাড়িতে হামলা-ভাঙচুর

Reporter Name / ১০৮ Time View
Update : রবিবার, ৫ মার্চ, ২০২৩

মিশু শিকদার, নিজস্ব প্রতিবেদক : পটুয়াখালীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে নৌবাহিনীর সদস্যর বসতবাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার (৪ র্মাচ) সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলার উত্তর বদরপুর গ্রামে মো. ইউসুফ হাওলাদারের বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী পরিবার তাৎক্ষনিক ৯৯৯-এ ফোন করলে পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠালে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম।

ভুক্তভোগী ইউসুফ হাওলাদার জানান, তার বড় ছেলে মো. শফিকুল ইসলাম বাংলাদেশ পুলিশে এবং ছোট ছেলে রাসূল কিবরিয়া বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে চাকুরি করেন। চাকুরি সুবাদে তারা দু’জনেই বাড়ির বাহিরে থাকেন। বাড়িতে তিনি এবং তার স্ত্রী থাকেন। তিনি বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জেরে শনিবার সকাল ১০টার দিকে একই গ্রামের মো. ফজলু হাওলাদার, তার ভাই মো. জসিম হাওলাদার এবং চাচা হানিফ হাওলাদারসহ ৭/৮ জনের একটি সন্ত্রাসীদল তার বসতবাড়িতে হামলা করে। এসময় তিনি ঘরের মধ্যে আশ্রয় নিলে হামলকারীরা ঘরের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে এবং ঘরের সামনের জানালা কুপিয়ে এবং পিটিয়ে ভাঙচুর করে। এসময় আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে তিনি তার বড় ছেলে পুলিশের এএসআই শফিকুল ইসলামকে জানালে তিনি ৯৯৯-এ ফোন করে সহযোগিতা চান। তাৎক্ষণিক পটুয়াখালী সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যান। এসময় হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে যাওয়া পটুয়াখালী সদর থানার এএসআই পিন্টু বলেন, জমি-জমা নিয়ে উভয় পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলছিল। হামলার সময় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, হামলকারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে হামলা করছে। এছাড়া ইটপাটকেল নিক্ষেপে ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘরে হামলার প্রমাণ পাওয়া যায়।

পটুয়াখালী সদর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, ৯৯৯ থেকে কল পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠানো হয়েছে। তবে ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বেই হামলাকারীরা পালিয়ে গেছে। ফলে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে হামলার পর থেকেই হামলাকারীরা বিভিন্ন প্রকার হামলা-মামলা, ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার। তারা জানিয়েছেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category